পাকিস্তানে চার্চে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ৫



৭১বিডি২৪ডটকম ॥ আন্তর্জাতিক ডেস্ক;


ছবি-ইন্টারনেট

ছবি-ইন্টারনেট


পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের কোয়েটায় একটি চার্চে আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৬ জন। আজ রবিবার বেথেল মেমোরিয়াল মেথোডিস্ট চার্চে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। খবর জিও টেলিভিশনের।

খবরে বলা হয়, হামলাকারীরা ওই চার্চে বোমা বিস্ফোরণের সঙ্গে সঙ্গেই পদক্ষেপ নেয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। হামলার পর কোয়েটার সব হাসপাতালে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। বর্তমানে ওই গির্জায় উদ্ধার অভিযান চলছে।

বেলুচিস্তানের আইজিপি মোয়াজ্জাম আনসারী বলেন, হামলার সময় ৪০০ জন লোক গির্জার ভিতরে উপস্থিত ছিলেন। নিরাপত্তা বাহিনী গির্জার ভেতর পরিষ্কার করছে।

বিস্ফোরণটি জানানোর পর সন্ত্রাসী ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ সময় সংবাদমাধ্যম কর্মীদের ঘটনাস্থল থেকে দূরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়।

বেলুচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মির সরফরাজ বুগতি বলেছেন, প্রাথমিকভাবে আমরা জেনেছি দুইজন আত্মঘাতী হামলাকারী চার্চে প্রবেশ করে। এদের মধ্যে একজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। অন্য আত্মঘাতী হামলাকারী বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে।

তিনি বলেছেন, নিরাপত্তাবাহিনী ও উদ্ধারকর্মীরা আহতদের চিকিৎসা দেওয়ার ওপর জোর দিচ্ছে।

বুগতি জানায়, আত্মঘাতী হামলাকারী অস্ত্রশস্ত্র বহন করেছিল। কিন্তু চার্চে প্রবেশ করার আগেই এফসি ও পুলিশ সদস্যরা তাদের একজনকে গুলি করে হত্যা করে। রবিবার গির্জায় প্রায় ৩০০-৪০০ জন মানুষ উপস্থিত ছিলেন বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে এই হামলার নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ ফয়সাল।

এক টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, কোয়েটার জারগুন রোডে চার্চ হামলার নিন্দা জানাই। এ ধরনের কাপুরুষোচিত হামলার কারণে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই থেকে পাকিস্তান সরে আসবে না।

এর আগে ২০১৫ সালের ১৫ মার্চে লাহোরের হৈহাবাদ অঞ্চলের দুইটি গীর্জায় তালেবানদের আত্মঘাতী বোমা হামলায় ১৫ জন লোক নিহত এবং ৭০ জন আহত হন।

সর্বশেষ সংবাদ